,


বিএনপি গণহত্যা দিবস পালন করছে না : তোফায়েল

ডেস্ক রিপোর্ট : সারাদেশের মানুষ ২৫ মার্চ ‘গণহত্যা দিবস’ পালন করলেও জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি এ দিবসটি পালন করছে না বলে অভিযোগ করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ।

ফাইল ফটো

তিনি বলেন, ‘দুঃখ লাগে, যখন খালেদা জিয়া বলেন ৩০ লাখ শহীদের সংখ্যা নিয়ে তার আপত্তি আছে; সংখ্যা নিয়ে তার সন্দেহ আছে। তখন খালেদা জিয়ার প্রতি ধিক্কার দেওয়া ছাড়াআর কিছু থাকে না। লক্ষ্য করেন, আজকে সারাবাংলার মানুষ গণহত্যা দিবস উপলক্ষে দিনটি পালন করছে। আজকে পালন করছে না শুধু বিএনপি। তার মানে বিএনপি পাকিস্তানের দোসর।’

রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে শনিবার (২৫ মার্চ) বিকালে এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের ব্যানারে লেখা হয়, ‘জাতীয়, আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে আমরা ঐক্যবদ্ধ।’ ‘২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস ঘোষণার প্রস্তাব জাতীয় সংসদে গৃহীত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার ও সংসদ সদস্যসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন।’ শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ ও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলনের আয়োজন করে। সংগঠনের আহ্বায়ক নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাহাজাহান খান এতে সভাপতিত্ব করেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘আমাদের চিন্তা করতে হবে, জামায়াত-শিবিরকে নিয়ে যে বিএনপি রাজনীতি করে সেই রাজনীতি ধ্বংসের রাজনীতি, অগ্নিসংযোগের রাজনীতি। তাদের বিরুদ্ধে আমাদের গর্জে উঠতে হবে।’

২৫ মার্চের কালরাতের ভয়াবহতার প্রেক্ষাপট তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘২৫ মার্চ ঠিক ১২টায় অপারেশন সার্চলাইটের নামে গণহত্যা শুরু হলো। এক রাতেই ঢাকা শহরে এক লাখ লোককে হত্যা করা হলো। খুলনা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেটসহ বড় বড় শহরে যেখানে আর্মি ক্যান্টনমেন্ট আছে সেখানেই তারা আক্রমণ চালালো। আমরা প্রতিরোধে গড়ে তুলেছিলাম। তার পর ৯ মাস যুদ্ধ করে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে প্রিয় মাতৃভূমিকে আমরা হানাদারমুক্ত করেছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘১১ মার্চ জাতীয় সংসদে ২৫ মার্চকে জাতীয় গণহত্যা দিবস হিসেবে চিহ্নিত করে তা পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। আজকে সারাদেশে তা পালন করা হয়েছে। আমরা জাতিসংঘের মাধ্যমে এইদিন আন্তর্জাতিকভাবে পালনের জন্য স্বীকৃতি আদায়ের চেষ্টা করবো।’

সৌজন্যে: দ্যা রিপোর্ট

Comments

comments