কালিহাতী ও দেলদুয়ারে অন্তঃসত্ত্বাসহ দুই গৃহবধূর আত্মহত্যা

0

নিজস্ব প্রতিনিধি : টাঙ্গাইল পৃথক ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বাসহ দুই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। রোববার দুপুরে ও শনিবার রাতে জেলার কালিহাতী ও দেলদুয়ার উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে।

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে ফাঁসিতে ঝুলে রুনা বেগম (২০) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। রোববার দুপুরে উপজেলার পাথরাইল ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত দু’বছর আগের টাঙ্গাইল সদরের চর সাটুরিয়া গ্রামের বাবু মিস্ত্রির মেয়ে রুনার সাথে দেলদুয়ার উপজেলার গোপালপুর গ্রামের মজনু সিকদারের ছেলে আব্দুর রহিমের (২৫) বিয়ে হয়। স্বাভাবিকভাবেই চলছিল তাদের দাম্পত্য জীবন। প্রতিদিনের মতো রোববারও স্বামী আব্দুর রহিম সকালে কাঠ মিস্ত্রীর কাজে বের হয়। দুপুরের খাবারের জন্য নিয়মিত বাড়িও আসে। এদিকে প্রতিদিন স্ত্রী রুনা দুপুরে কাজের ফাঁকে ঘণ্টা খানেক ঘুমিয়ে নেয়। রোববারও দুপুরে রহিম খেতে এসে ঘর আটকানো দেখে ভাবেন স্ত্রী রুনা ঘুমাচ্ছে। খাওয়া সেড়ে পুনরায় কাজে গেলে বাড়ির লোক দরজা খুলে দেখতে পায় স্ত্রী রুনা ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলে আছে। স্থানীয়রা লাশটি উদ্ধার করে।

পাথরাইল ইউপি চেয়ারম্যান হানিফুজ্জামান লিটন বলেন, আমি শুনে ঘটনাস্থলে এসেছি। মেয়ে পক্ষ আইনে গেলে আমি আইনি সহায়তা দিতে পাশে থাকবো।

দেলদুয়ার থানার ওসি মোশাররফ হোসেন বলেন, ঘটনা শুনেছি। মেয়ের পক্ষ কোন অভিযোগ দিতে চাচ্ছে না। তবু আমি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠাচ্ছি।

এদিকে শনিবার গভীর রাতে কালিহাতী উপজেলার বানিয়াফৈর গ্রামের সৌদি প্রবাসী মুক্তার আলীর স্ত্রী হামিমা বেগম (২৩) ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে।

জানা যায়, উপজেলার বানিয়াফৈর গ্রামের সৌদি প্রবাসী মুক্তার আলী একই উপজেলার কালোহা গ্রামের খলিলের মেয়ে হামিমা বেগমকে (২৩) গত ৫ বছর আগে বিয়ে করেন। বিয়ের পরে সৌদি প্রবাসী মুক্তার আলী সম্প্রতি ছুটিতে আসেন। গতকাল রাতে প্রতিবেশীর বাড়িতে বিয়ের দাওয়াত খেয়ে রাত ১১টার দিকে সবাই ঘুমাতে গেলে সে পাশের ঘরে প্রবাসী স্বামীর সাথে মুঠো ফোনে কথা বলে। দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও হামিমা ঘুমাতে না আসায় তার শাশুড়ি তাকে ডাকতে গেলে ঘরের ভিতরে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। ওই সময় তার চিৎকারে আশে পাশের লোক জন এগিয়ে এসে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নিচে নামায়। পরে থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

Comments

comments

Share.

Leave A Reply