ঢাকা শনিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৮

Mountain View



টাঙ্গাইল উপনির্বাচনে আ’লীগের টিকিট কিনলেন যারা

Print Friendly, PDF & Email

চ্যানেল আই অনলাইনের সৌজন্যে : টাঙ্গাইল-৪ আসনের উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ থেকে ১৯ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী ফরম সংগ্রহ করেছেন। বৃহস্পতিবার থেকে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিতরণের প্রথম দিনে ১১ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী ফরম সংগ্রহ করেন।

দ্বিতীয় দিন সংগ্রহ করেন ৮ জন। তবে ১৯ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেও নির্বাচনী মাঠে নেই এদের অনেকেই।

দলীয় ফরম সংগ্রহকারীদের মধ্যে রয়েছেন, টাঙ্গাইল মুক্তিবাহিনীর অন্যতম সংগঠক কাদেরীয়া বাহিনীর বেসামরিক প্রধান ও সাবেক রাষ্ট্রদূত আনোয়ারুল আলম শহীদ, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ও কালীহাতী উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ও জনতা ব্যাংকের পরিচালক আবু নাসের, উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক জিয়াউল আবেদীন, জাফরুল শাহরিয়ার জুয়েল, কালীহাতি উপজেলা চেয়ারম্যান মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, কালীহাতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র আনসার আলী, টাঙ্গাইল সমবায় ব্যাংকের সভাপতি কুদরত-ই-এলাহী খান, এফবিসিসিআই এর সাবেক সহ-সভাপতি আবুল কাশেম, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনিছুর রহমান খান, যুব মহিলা লীগ নেতা সাবিনা ইয়াসমীন ইব্রাহীম, স্থানীয় নেতা অ্যাডভোকেট মহসীন সিকদার প্রমুখ।

১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার গণভবনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দলের পার্লামেন্টারি বোর্ডের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওই সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী টাঙ্গাইল-৪ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ১ ও ২ অক্টোবর সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ এবং ৩ অক্টোবর মনোনয়নের আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

আগামী ৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারী প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানের পর দলের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।

ধর্ম ও হজ নিয়ে কটূক্তির দায়ে আওয়ামী লীগ ও মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কৃত আবদুল লতিফ সিদ্দিকী সংসদ থেকে পদত্যাগ করায় টাঙ্গাইল-৪ আসনটি শূন্য হয়।

আগামী ১০ নভেন্বর ১৩ ইউনিয়ন, ২টি পৌরসভার ২ লাখ ৭৭ হাজার ৮৪৭ জন ভোটারের এই আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ফেসবুক মন্তব্য