ঢাকা রবিবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৮

Mountain View



টাঙ্গাইলে যৌতুক না দেয়ায় স্ত্রীকে নির্যাতনের দায়ে স্বামী গ্রেপ্তার

Print Friendly, PDF & Email

মুহা. জোবায়েদ মল্লিক বুলবুল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় যৌতুক না দেয়ায় স্ত্রীর উপর বর্বরোচিত নির্যাতন চালানোর অভিযোগে সোমবার বিকালে স্বামীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

জানাগেছে, বিগত ২০০১ সালে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়া কলেজপাড়ার আব্দুল হান্নান মিয়ার মেয়ে মোছা. লিলি আক্তারের সাথে কালিহাতী উপজেলার খিলদা গ্রামের মো. নুরুল ইসলামের ছেলে মো. ইকবাল হোসেনের সামাজিক মর্যাদায় বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই মো. ইকবাল হোসেন তার স্ত্রী মোছা. লিলি আক্তারের কাছে ব্যবসা করার জন্য ১ লাখ টাকা যৌতকি দাবি করছিল। এর মধ্যে তাদের ঘরে এক পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। গত ৯ জুলাই ইকবাল হোসেন আবারও যৌতুকের ১ লাখ টাকা আনার জন্য লিলি আক্তারকে চাপ দেয়। লিলি আক্তার টাকা আনতে অস্বীকৃতি জানালে উভয়ের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে ইকবাল হোসেন লাঠি দিয়ে লিলি আক্তারকে পিটিয়ে আহত করে। প্রতিবেশিদের কাছ থেকে সংবাদ পেয়ে লিলি আক্তারের ভাই রুহুল আমিন(বিপ্লব) এসে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় লিলি আক্তার বাদি হয়ে কালিহাতী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে ইকবাল হোসেন ও তার মা নাজমা বেগম আত্মগোপনে চলে যায়। ঘটনার তিন মাস পর সোমবার পুলিশ গাজিপুরের টঙ্গী থেকে ইকবাল হোসেন(৩৮) ও তার মা নাজমা বেগমকে(৫২) গ্রেপ্তার করে বিকালে আদালতে সোপর্দ করে। বিজ্ঞ আদালত ইকবাল হোসেনের মা নাজমা বেগমকে মুচলেকায় জামিন ও ইকবাল হোসেনকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পুলিশ জানায়, ইকবাল হোসেন স্ত্রীকে নির্যাতন করে আত্মগোপনে থেকে গাজিপুরের টঙ্গী এলাকায় একটি এনজিওতে চাকুরি করছিল। সেখানে অভিযান চালিয়ে মা ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

ফেসবুক মন্তব্য