ঢাকা শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮

Mountain View



মধুপুরে তরুণী গণধর্ষণের অভিযোগে ছাত্রলীগ-যুবলীগের দুই নেতা গ্রেপ্তার

Print Friendly, PDF & Email

এসএম সবুজ, মধুপুর (টাঙ্গাইল) : মধুপুরে স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দুই নেতা মিলে এক যুবতিকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ।

সোমবার (১২ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার বনাঞ্চলের বেরিবাইদ এলাকার আয়নাল মেম্বারের টং ঘরের পাশের জঙ্গলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মধুপুর থানায় ধর্ষণের মামলা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- অরণখোলা ইউনিয়নের জলছত্র এলাকার জনৈক ইব্রাহীম’র ছেলে আরিফুল ইসলাম(২৪) এবং একই এলাকার জনৈক আব্দুল কুদ্দুস’র ছেলে আমিনুল ইসলাম(২৩)।
আরিফ অরণখোলা ইউনিয়নের ছাত্রলীগ সভাপতি এবং আমিনুল যুবলীগ সদস্য বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

তবে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বাবলু আরিফুলের ছাত্রলীগের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করেছেন।

অন্যদিকে অরণখোলা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজির হোসেনও আমিনুলের যুবলীগের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, পৌর এলাকার দূর্গাপুর এলাকার ওই তরুণি তার চাচাত ভাই আবুল কাশেমের সঙ্গে অরণখোলা ইউপি’র ঘুঘুর বাজার এলাকায় কবিরাজ বাড়িতে যাওয়ার পথে ধর্ষকরা তাদের পিছু নেয়। এক পর্যায়ে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দুই নেতা চাচাতো ভাই কাশেমকে আটকে রেখে ঐ স্থানে তরুণিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

কাশেম বন থেকে বের হয়ে এসে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কে টহলরত পুলিশকে বিষয়টি জানালে অরণখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আমিনুুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিবস্ত্র অবস্থায় ধর্ষিত তরুণিকে উদ্ধার করে। এ সময় পালিয়ে যেতে চাইলে পুলিশ দুই ধর্ষবকে গ্রেপ্তার করে।

মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১)/৩০ ধারায় ধর্ষণের মামলা হয়েছে। ধর্ষিতার মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফেসবুক মন্তব্য