ঢাকা মঙ্গলবার, নভেম্বর ২০, ২০১৮

Mountain View



টাঙ্গাইলের গোপালপুরে সংখ্যালঘু খুন, আইএস এর দায় স্বীকার

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের গোপালপুর পৌরসভায় নিখিল চন্দ্র জোয়ারদার (৫০) নামে এক দর্জি খুন হয়েছেন। শনিবার সকালে পৌরসভার পাকুটিয়া-সূতিকালিবাড়ি সড়কের ডুবাইল মাদরাসার অদূরে নিজ টেইলার্সের সামনে তিনি খুন হন। নিহত নিখিল জোয়ারদার এলাকার বলরাম জোয়ারদারের ছেলে এবং তিনি পেশায় দর্জি ছিলেন।

Photo-GGopalpur-Tangail-30.04 (2)

এদিকে নিখিল চন্দ্র জোয়ার্দারকে হত্যার দায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) স্বীকার করেছে বলে দাবি করেছে সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ। টুইইটারে সাইট জানিয়েছে, হযরত মোহাম্মদ (স.) কে অবমাননা করায় নিখিলকে হত্যা করেছে আইএস।

এলাকাবাসীদের ধারণা, নিখিল উগ্রপন্থিদের হাতে খুন হয়েছেন।

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নিখিল বাড়ির নিকটস্থ নিজ টেইলার্সে বসে পোশাক নির্মাণের কাজ করছিলেন। এ সময়ে পূর্বদিক থেকে মোটরসাইকেলে করে তিন যুবক টেইলার্সের সামনে এসে নিখিলকে বাইরে আসতে বলে। তাদের কাছাকাছি আসতেই মোটরসাইকেল আরোহী অপর দুই যুবক ব্যাগ থেকে ছুরি বের করে তাকে কোপাতে থাকে। যুবকরা তার বুকে, ঘাড়ে ও মাথায় ৭/৮টি কোপ দেয়। মৃত্যু নিশ্চিত করে মোটরসাইকেলে করে সূতিকালিবাড়ির দিকে চলে যায়। এ সময় তারা একটি ব্যাগ ফেলে যায়। যার ভিতরে ৪/৫টি ককটেল রয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, দুই বছর আগে মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি করায় এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে অপদস্ত করে। পরে পুলিশ নিখিলকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায়। তিন মাস জেলহাজতে থাকার পর জামিনে বেরিয়ে আসে নিখিল।

গোপালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল জলিল জানান, উগ্রপন্থিদের দ্বারাই নিখিল খুন হয়েছে তা নিশ্চিত করে এখনি বলা যাচ্ছে না। তদন্তে আরও একটি পারিবারিক বিষয় মাথায় রাখা হয়েছে।

ফেসবুক মন্তব্য