ঢাকা শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮

Mountain View



‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে’ -মধুপুরে সংবর্ধনায়- ড.আব্দুর রাজ্জাক

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিনিধি, মধুপুর, টাঙ্গাইল : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে। ষড়যন্ত্রকারীদের কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। প্রত্যেককে খুঁজে বের করে বিচারের সম্মুখীন করা হবে। বিএনপি-জামায়াত চক্র জ্বালাও পোড়াও আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে দেশে সম্পাদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত এ দেশ সকল মানুষের সকল সম্প্রদায়ের। এই বাংলার মাটিতে সাম্প্রদায়িকতার কোন স্থান হবে না। তিনি গতকাল শনিবার বিকেলে মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে তাকে দেয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

dsc04575

রানী ভবানী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত সংবর্ধনায় আব্দুর রাজ্জাক আরো বলেন, বাংলার মাটিতে ৭ নভেম্বর বিপ্লব দিবস পালন হতে পারে না। কারণ সেদিন কোন বিপ্লব হয়েছিল না। কিছু উশৃংখল সেনা সদস্য অগণতান্ত্রিকভাবে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করেছিল।

 ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা নিবে নির্বাচন কমিশন। আওয়ামী লীগের দায়িত্ব হবে সকল দলকে সাথে নিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করা।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আওয়ামী লীগের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং মুক্তিযুদ্ধে চেতনায় দেশ গড়ে তুলতে এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী হতে হবে। এজন্য আওয়ামী লীগের প্রতিটি কর্মিকে মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরতে হবে। মনে রাখতে হবে ষড়যন্ত্রকারীরা বসে নেই, সেদিকেও সজাগ থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে কাজে লাগিয়ে আমি আজীবন দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করে যেতে চাই।

তিনি বলেন, তৃণমুলের নেতাকর্মী তথা মধুপুরবাসীর ভালবাসার কথা আমি কখনো ভুলব না। তৃণমুলের নেতাকর্মীরাই হলো আওয়ামীলীগের প্রাণ।

মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার শফিউদ্দিন মনির সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অপর সংবর্ধিত অতিথি আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের, টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরণ, মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছরোয়ার আলম খান আবু, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি আজিজুল হক লুলু, আওয়মীলীগ নেতা বাপ্পু সিদ্দিকী, মধুপুর পৌরসভার মেয়র মাসুদ পারভেজ প্রমুখ ।

ফেসবুক মন্তব্য