ঢাকা বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮

Mountain View



১৪৪ধারা ও বিজিবি মোতায়েন, গোপালপুরে ভাঙচুর, লোপাট ও অগ্নিসংযোগের মধ্যে দিয়ে চলছে হরতাল-অবরোধ

Print Friendly, PDF & Email
কে এম মিঠু, গোপালপুর (টাঙ্গাইল) : টাঙ্গাইলের গোপালপুরে দোকানপাট বাসা-বাড়ি ভাঙচুর, লোপাট ও অগ্নিসংযোগের মধ্যে দিয়ে চলছে আঠারো দলের অবরোধ ও জামায়াতের হরতার কর্মসূচী। নাশকতা এড়াতে গোপালপুর পৌরশহরে মঙ্গলবার রাত হতে জারি করা হয়েছে ১৪৪ধারা ও টহল চলছে বিজিবি’র। ঘটনায় শহরে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার বিকেলের দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ কাদের মোল্লার ফাঁসি অবিলম্বে কার্যকর করার দাবিতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি শহরের পুরাতন পৌর মার্কেট এলাকায় পৌছলে আঠারো দলের নেতা-কর্মীরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় ক্ষুদ্ধ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ও আঠারো দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় উভয় পক্ষের লোকজন আভুঙ্গী এলাকার ১০-১২টি দোকান ভাঙচুর, লোপাটসহ অগ্নিসংযোগ করে। এসময় ইকবাল হোসেনের গোডাউনে রাখা তালুকদার টেড্রাসের ২৫০বস্তা এমওপি এবং ৫০বস্তা ডিএপি সার আগুনের নষ্ট হয়ে যায়। এছাড়া উপজেলা ট্রাক শ্রমিক নেতা শাহীন সিদ্দিকীর বাসা ভাঙচুর, লোটপাট, অগ্নিসংযোগ, বেলায়েত হোসেনের বাসা, মজিবর রহমানের বাসা, হাবিবুর রহামানের বাসা ভাঙচুর, শরিফুজ্জামানের ভূইয়া ভ্যারাইটিস ষ্টোর ভাংচুর ও লোপাট, ইয়াসিনের তুলার দোকান, মো. লাল মিঞার লাবনী জুয়েলার্স, আব্দুল গনির সাথী ওয়াচ এন্ড ইলেকট্রনিক হাউজ ভাঙচুর ও লোপাট করা হয় বলে ক্ষতিগ্রস্থরা অভিযোগ করেন। 
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। খবর ছড়িয়ে পড়লে শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এসময় বিএনপি নেতা বোরহান উদ্দিন ও ছাত্রদল নেতা আব্দুল বারি গুলিবিদ্ধ হয় বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। অপর দিকে মঙ্গলবার রাত ৭টার দিকে হাদিরা ইউনিয়নের চককাশি এলাকায় সায়েম আল মামুন নামের এক স্কুল শিক্ষককে কুপিয়ে আহত করে অবরোধ সমর্থকরা। পরে তাকে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
ঘটনায় গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তানজিনা ইসলাম মঙ্গলবার রাত ৮টা হতে শুক্রবার ভোর ৬টা পর্যন্ত পৌরশহরে ১৪৪ধারা জারি করা হয় এবং বুধবার শহরের বিজিবি মোতায়েন করা হয়।  

ফেসবুক মন্তব্য