ঢাকা বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮

Mountain View



দ্বিতীয় বিয়েতেই সর্বনাশ !

Print Friendly, PDF & Email

(লাইফ স্টাইল ডেস্ক) আগেকার দিনের মতো একই সঙ্গে দুই পত্নী নিয়ে সংসার করার চল এখন কম হলেও প্রথম পত্নীর পাট চুকিয়ে দ্বিতীয় বার বিয়ের পিঁড়িতে বসার চল বাড়ছে দিন দিন। আর সেটা না করার জন্যেই হুঁশিয়ার করলেন মনোবিজ্ঞানীরা।marryagain

সাম্প্রতিক এক জরিপ থেকেই দ্বিতীয় বিয়ের এই বিফল পরিণতি দেখতে পেয়েছেন তারা। আর এই জরিপের ফলাফল থেকেই সচেতন করে দিচ্ছেন প্রথম বিয়ে নিয়ে যারা নাখোশ, তাদের। তবে গোটা গবেষণাই চালানো হয়েছে পুরুষদের দৃষ্টিকোণ থেকে। জরিপে দেখা গেছে, বেশিরভাগ দ্বিতীয় বিয়েই অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে শেষ হয়।  প্রথম বিয়ে বিফল হলে, সঙ্গীর সঙ্গে না মিললে অনেকেই আগের ভুল-চুক শুধরিয়ে দ্বিতীয়বার বিয়ে করে সুখের নীড় রচনা করতে চায়। কারণ  নেতিবাচক অভিজ্ঞতা ও তিক্ত অতীতকে ভুলে থাকতে চাওয়া একেবারেই স্বাভাবিক প্রবণতা। প্রথম বিয়ে বিফলে যাওয়ার পর দ্বিতীয় বিয়ে করে সুখী হতে চাওয়ার বিষয়টিও ঠিক এই ধরনের। কিন্তু দ্বিতীয়বারের বিয়েতেই নাকি বেশি বিপদ!

এই বিপদের পেছনে বেশ কয়েকটি কারণও বের করেছেন মনোবিজ্ঞানীরা। প্রথমত, দ্বিতীয় স্ত্রী কখনো প্রথম স্ত্রীর মতো আন্তরিক হয় না। তাদের চাওয়া-পাওয়ার মাত্রাটাও থাকে প্রথমজন থেকে অনেক বেশি। এটাই তাদের স্বামীর মৌলিক প্রয়োজন বুঝে ওঠার পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়।  দ্বিতীয় কারণ হিসেবে আছে, প্রথম স্ত্রীর সন্তানদের সঙ্গে দ্বিতীয় স্ত্রীর মনোমালিন্য। আমাদের দেশের প্রেক্ষিতেও এটা বেশ প্রচলিত। তাছাড়া প্রথম স্ত্রীর সন্তানরাও বাবার দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়টা স্বাভাবিকভাবে না নেয়ায় এ ধরনের হতে পারে।  তাছাড়া দ্বিতীয় স্ত্রী বেশিরভাগ সময়েই প্রথম স্ত্রীর সন্তানদের প্রতি দ্বিতীয় স্ত্রীর নাক-সিঁটকানো স্বভাব দেখাতে পারে। আর এসব কারণে তাদের মধ্যে আন্তরিক পরিবেশ সৃষ্টির সম্ভাবনাটা শেষ হয়ে যায়।

তবে সব দ্বিতীয় বিয়েই যে বিফলে যায়, এমনটা নয়।  তবে তার সংখ্যা উল্লেখ করার মতো নয়। বরং বিফলতার হারই উল্লেখযোগ্য।

তথ্যসূত্র : টাইম

ফেসবুক মন্তব্য