ঢাকা বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮

Mountain View



লতিফ সিদ্দিকীর আয়ের উৎস্য মন্ত্রী পেশা ও গবেষণা, ছেলের কাছে দেনা ৭৩ লাখ টাকা

Print Friendly, PDF & Email

আবীর দে, নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন জাতীয় দশম সংসদ সদস্য নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রার্থীরা ইতোমধ্যে রিটার্নিং অফিসারদের কাছে  মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। মনোয়নপত্রের সঙ্গে হলফনামায় দাখিল করেছেন  তাঁদের প্রয়োজনীয় তথ্য।

ইসিতে জমা দেয়া হলফনামার তথ্যমতে টাঙ্গাইল-৪ আসনের আওয়ামীলীগের প্রার্থী সাবেক পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী মন্ত্রী হিসেবে তিঁনি সম্মানী পান ৬ লাখ ৩৭ হাজার ২০০ টাকা। ব্যাংক থেকে মুনাফা পান ৩ লাখ ৩৮ হাজার টাকা। ব্যাংকে কতো টাকা রয়েছে জনমনে প্রশ্ন থাকলেও নির্বাচনী হলফনামায় ব্যাংকে জমা দেখানো হয়েছে ৭৩ লাখ ৮২ হাজার  ৫০০ টাকা। নগদ টাকা দেখানো হয়েছে ৩ লাখ ৮২ হাজার টাকা। কর পরিশোধ করেছেন ৯৫ হাজার ১৫২ টাকা।

কিন্তু জানা যায়, আওয়ামী সরকারের পাঁচ বছরে মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর সম্পদ বেঁড়েছে প্রায় ২০ গুণ। ২০০৮ সালের নির্বাচনী হলফনামায় দেয়া তথ্য অনুসারে সস্ত্রীক লতিফ সিদ্দিকীর স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ১১ লাখ ৫৬ হাজার ২২৫ টাকা। কিন্তু বর্তমানে তাঁর আয়ের পরিমাণ প্রায় কোটি টাকা। ২০০৮ সালে প্রকাশনা ব্যবসা ও কৃষি ছিল প্রধান আয়ের উৎস্য। ব্যবসা কৃষি থেকে আয় ছিল  বাৎসরিক ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা। কিন্তু বর্তমানে ব্যবসা ও কৃষি থেকে কোন আয় নেই তাঁর! বর্তমানে লতিফ সিদ্দিকীর আয়ের উৎস্য মন্ত্রী পেশা ও গবেষণা। তিনি ৬৫ লাখ টাকা দামের টয়োটা গাড়ি ব্যবহার করেন।

এছাড়া ইসিতে দেওয়া তথ্য মতে জানা যায়, তিঁনি তাঁর পুত্র অনিক সিদ্দিকীর কাছে ৭৩ লাখ টাকার দেনা রয়েছে। এছাড়া  প্রায় ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার রয়েছে। লতিফ সিদ্দিকী’র শিক্ষাগত যোগত্য মাস্টার্স অব আর্টস।

ফেসবুক মন্তব্য