ঢাকা মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৮

Mountain View



নাগরপুরে শ্বশুর-পুত্রবধুর অবৈধ অসম প্রেম, হাতে নাতে ধরলেন বেরসিক জনতা

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইলঃ শশুর ও পুত্রবধুর অসম প্রেম অতপর দৈহিক মিলনের সময় হাতেনাতে ধরে ফেলে বেরসিক জনতা। পরে তাদের লোহার শিকল দিয়ে বেধে রেখেছে স্থানীয় ইউপি সদস্য।

এ ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার কাশাদহ গ্রামে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলা কাশাদহ গ্রামে মোঃ হাবিব মিয়ার ছেলে ফারুক হোসেনের (৩০) সাথে প্রায় আট বছর আগে পুখুরিয়া গ্রামের মৃত ওসমান মিয়ার ছোট মেয়ে রেমু বেগমের (২৬) বিয়ে হয়। বিয়ের বছর তিনেক পর থেকে শশুর হাবিব মিয়া ও পুত্রবধু রেনু বেগমের সাথে প্রেমের সম্পর্কের সৃষ্টি হয়। তারা প্রতিনিয়তই অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকে।

শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে শশুর হাবিব মিয়া তার নিজ বাড়িতে পুত্রবধু রেনু বেগমের সাথে দৈহিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এসময় পূর্বে থেকে ওৎ পেতে থাকা গ্রামবাসী তাদেরকে হাতেনাতে আটক করে। পরে এলাকাবাসী শশুর ও পুত্রবধুকে শিকল দিয়ে বেধে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্যর কাছে হস্তন্তর করে।

এঘটনায় দারণ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। শতশত উৎসুক নারী পুরুষ শশুর ও পুত্রবধুকে দেখার জন্য ঐ বাড়ীতে ভীড় করে। এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য মোঃ খলিল মিয়া ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শরীয়ত মোতাবেক তাদের বিচার করা হবে।

ফেসবুক মন্তব্য