ঢাকা বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮

Mountain View



মির্জাপুরে চাঁদাবাজির সময় ছাত্রলীগ নেতাসহ পুলিশের হাতে আটক ৫

Print Friendly, PDF & Email

শাহ্ সৈকত মুন্না, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ মির্জাপুরে চাঁদা নেয়ার সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদকসহ পাঁচ যুবককে হাতেনাতে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার রাত ৮ টার দিকে পৌর শহরের সদয় কৃষ্ণ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের পেছন থেকে তাদের আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, দুপুরের দিকে সদরের বাওয়ার কুমারজানী গ্রামের জোনাব আলীর ছেলে শাহ আলম কবুতর কিনতে মির্জাপুর বাবু বাজারের যান। সেখানে মনিরসহ ওই পাঁচ যুবক তাকে জিম্মি করে তার সঙ্গে থাকা নগদ ১০ হাজার টাকা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। পরে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তার কাছে আরও ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।

বিকালে শাহ আলম বিষয়টি মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমূল হক ভূইয়াকে জানান। পরে ওসির নির্দেশে উপপরিদর্শক (এসআই) আইয়ূব খান মোবাইল ফোনে চাঁদাবাজদের সঙ্গে যোগাযোগ করে টাকার দেয়ার কথা স্বীকার করে টোপ দেন। কথামতো চাঁদার টাকা নেয়ার জন্য রাত ৮টার দিকে মনিরসহ সাত যুবক মির্জাপুর সদয় কৃষ্ণ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের পেছনে অন্ধকার স্থানে আসে। এসময় আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা পুলিশ সদস্যরা তাদের ধরে ফেলে। এ সময় অপর দুই যুবক পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আইয়ূব খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

আটককরা হলেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক সদরের পোষ্টাকামুরী গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে মো. মনির হোসেন (২৮), বাইমহাটি গ্রামের সুলতান মিয়ার ছেলে মামুন (৩১) একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে ইমরান (২৭), মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামের পূর্ণ চন্দ্র সাহার ছেলে চন্দ্রন সাহা (৩০) এবং একই গ্রামের শহীদুল ইসলামের ছেলে বুবু খন্দকার।

ফেসবুক মন্তব্য