ঢাকা রবিবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৮

Mountain View



ঘাটাইলে বৈশাখী মেলায় গিয়ে গণ ধর্ষণের শিকার পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী, গ্রেপ্তার ১০ যুবক

Print Friendly, PDF & Email

মোঃ আরিফ খান, নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বৈশাখী মেলায় গিয়ে গণ ধর্ষণের শিকার হয়েছে পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী। টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার পৌরসভাধীন রতনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত পহেলা বৈশাখের মেলা দেখে গত ১৬ এপ্রিল রাতে ছাত্রীটি তার খালার বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।

Rape (1)

ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইল ও পুলিশ গত রোববার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে রতনপুর গ্রামের ১০ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনার তিন দিন পর এ ব্যাপারে ধর্ষিতা ছাত্রীর মা বাদী হয়ে গতকাল সোমবার ঘাটাইল থানায় গন ধর্ষনের মামলা করেছে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলা গৌরিশ্বর গ্রামের অনামিকা (ছদ্মনাম) গত ১৬ এপ্রিল বৈশাখী মেলা দেখার জন্য তার মাকে নিয়ে রতনপুর গ্রামে তার খালার বাড়িতে আসে । মেলা দেখে ঐ দিন রাতে ছাত্রীটি একা তার খালার বাড়িতে ফিরছিল । এ সময় ১০/১২জন যুবক তার গতিরোধ করে রতনপুর ঈদগাহ মাঠ থেকে পাশ্ববর্তী মরা খালে নিয়ে ধর্ষণ করে।

অনামিকা জানায় ঘটনার পর সে কাউকে না জানিয়ে লোকলজ্জার ভয়ে ঘাটাইল পৌরসভাধীন ঝড়কা এলাকায় তার এক বান্ধবীর বাড়িতে আশ্রয় নেয়। সেখান থেকে মোবাইল ফোনে সে তার বাবা-মাকে বিষয়টি অবগত করেন । ঘটনার তিন পর তার বাবা-মা তাকে সেখান থেকে নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘাটাইলের টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হলেও আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় ধর্ষিতার পরিবার থানায় মামলা করার সাহস দেখায়নি বলে জানান ছাত্রীটির মা।

এ আবস্থায় গত ১৯এপ্রিল রাতে রতনপুর গ্রামের চকপাড়া এলাকায় মেয়ের মামা রমজান আলীর বাড়িতে বিষয়টি নিয়ে উপজেলা আ’লীগের এক প্রভাবশালী নেতার উপস্থিতিতে এক সালিশি বৈঠকের আয়োজন করে। ঘটনার এমন প্রেক্ষিতে ধর্ষণের শিকার অনামিকার বোন জামাই আজগর আলী ঘটনাটি র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইলকে অবগত করে। পরে গত ১৯এপ্রিল গভীর রাতে রাতে পুলিশ ও র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইল যৌথ অভিযান চালিয়ে সালিশি বৈঠক থেকে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১০ যুবককে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হল ঘাটাইল উপজেলার জাহাঙ্গীর আলম(১৯), আজহারুল ইসলাম(২৫),মোঃ সবুজ (২০),শরিফুল ইসলাম(২০),রেজাইল বাপ্পী(১৮), সিরাজুল শুভ(২০),হারুন অর রশিদ(২০),মোঃ আরিফ হোসেন(১৯), মাসুম মিয়া(২৫) ও জিহাদ হোসেন(১৯)। এদের সকলের বাড়ি ঘাটাইল উপজেলার পৌরসভাধীন রতনপুর গ্রামে

ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মাকসুদুল আলম জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন/২০০০ সংশোধনী ২০০৩ ৯(৩)/৩০ ধারায় মামলা করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত দশ জনকে গতকাল সোমবারই টাঙ্গাইল জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে । অনামিকাকে (ছদ্মনাম) ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত চলছে।

এই সংবাদ সম্পর্কিত আরও সংবাদ পড়ুন :

ঘাটাইলে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ : প্রতিবাদে মানববন্ধন 

ফেসবুক মন্তব্য