ঢাকা মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৮

Mountain View



ভূঞাপুরে দুই ঘন্টায় ভোট পড়েছে একটি! ভোটার শূন্য ভোট কেন্দ্রগুলো

Print Friendly, PDF & Email

অভিজিৎ ঘোষ, ভূঞাপুর সংবাদদদাতা: টাঙ্গাইাল-২ (ভূঞাপুর-গোপালপুর) আসনের ভূঞাপুরের গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪র্থ নং বুধ কেন্দ্রে প্রায় ২ ঘন্টা পর একটি ভোট পড়েছে। অন্যান্য বুথগুলো দেড় ঘন্টায় অর্ধশতাধিক ভোট কালেক্ট করেছেন পোলিং এজেন্টরা। শুধু উপজেলার গোবিন্দাসী নয় পৌর এলাকার ভূঞাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও দেড় ঘন্টা পর একটি কক্ষে ভোট পড়েছে একটি। অন্যান্য ভোটকেন্দ্রগুলো ভোটার শূন্য দেখা গেছে।

উপজেলার গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্রের ৭টি বুথে সকাল ৯টা ৫০ পর্যন্ত ভোট পড়েছে প্রায় ৭০টি। একই ইউনিয়নের খানুরবাড়ী ভোটকেন্দ্রে এর ৪টি বুথে সাড়ে ৯টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৫০টি। অন্যদিকে পৌর এলাকার ভূঞাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই ঘন্টায় ভোট পড়েছে ৪০টিও কম। ওই কেন্দ্রের ৪নং বুথে ভোট পড়েছে দেড় ঘন্টায় একটি ভোট। পৌর এলাকার ঘাটান্দি কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ১৩টি, ফসলান্দি কেন্দ্রে পড়েছে ১৫ ভোট।

গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার লুৎফর রহমান জানান, আমরা যথারীতি ৮ থেকে ভোট গ্রহণ শুরু করেছি। সকাল থেকেই ভোটার উপস্থিতি কম। যে কারনে দেড় ঘন্টায় হয়তো ১টি ভোট পড়েছে বুথে। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটার উপস্থিতি বেড়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ওই প্রিজাইডিং অফিসার। ভূঞাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার শহিদুল ইসলাম জানান, সকাল থেকে কয়েকজন ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করেছেন। দেড় ঘন্টায় একটি বুথে একটি ভোট পড়েছে বলে জানান তিনি।

টাঙ্গাইল-২ (ভূঞাপুর-গোপালপুর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খন্দকার আসাদুজ্জামান ও জাতীয় পার্টি (জেপি) আজিজুর রহমান তরফদার আজিজ বাঙ্গাল এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সকাল ৮টার দিকে জেপি প্রার্থী আজিজ বাঙ্গাল ভূঞাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদালয়ে তার ভোট প্রয়োগ করেন। সেসময় তিনি সাংবাদিকদের কাছে বিজয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ভূঞাপুর উপজেলায় ৫১টি ভোট কেন্দ্রে ২৬৪টি বুথে ১ লাখ ২৯ হাজার ৭৭৯ জন ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করবে। এ ভোট গ্রহনে অংশ নিয়েছেন ৫১ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ২৬৪জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসারসহ ৫২৮ জন পোলিং অফিসার নিয়োজিত রয়েছে ন। অন্যদিকে নাশকতা এড়াকে বিপুল সংখ্যাক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীর পাশাপাশি সেনা তহল জোরদার করা হয়েছে।

 

ফেসবুক মন্তব্য