ঢাকা শুক্রবার, মে ২৪, ২০১৯

Mountain View



টাঙ্গাইলের শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হাই কেয়ার স্কুলের নাজেহাল অবস্থা, নেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি

Print Friendly, PDF & Email

ফাহিম জামান, টাঙ্গাইল সদর প্রতিনিধি : শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের আদর্শ কথা ও লেখাপড়া বিষয়ক টাঙ্গাইলের অন্যতম একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘হাই কেয়ার স্কুল, টাঙ্গাইল’। শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধীদের জন্য একমাত্র এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।

tangail 1

কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির এখন নাজেহাল অবস্থা। শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনে নেই যথেষ্ট শ্রেণী কক্ষ। মাত্র তিনটি শ্রেণী কক্ষ থাকলেও সেগুলোর এখন প্রায় অচলাবস্থা। দেয়াল ভেঙ্গে গেছে, খসেখসে পড়ছে দেয়ালের ইট । এমনকি মাথার উপর যে টিনের চালটি রয়েছে সেটিরও করুণ অবস্থা। সামান্য বৃষ্টি হলেই টিনের চালে থাকা অসংখ্য ছিদ্র দিয়ে পানি পড়ে ভেসে যায় শ্রেণীকক্ষ। শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য ছোট খেলার মাঠটিও নিচু হওয়ায় বৃষ্টির পানি জমে থাকে। বৃষ্টি হলেই প্রতিষ্ঠানটির প্রবেশ পথে জমে থাকে পানি যার ফলে প্রতিষ্ঠানে যেতে নানা ধরনের ভোগান্তি পোহাতে হয় এখানে অধ্যায়ণরত শিশুদের । স্কুলে সীমানা প্রাচীর না থাকায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে প্রতিবন্ধী শিশুরা। এরকম বিভিন্ন সমস্যায় প্রতিবন্ধী শিশুরা ক্লাস করতে নানা ধরনের ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

প্রতিষ্ঠানটিতে ৫৫ জন ছাত্র শিক্ষা গ্রহণ করছে। এরা প্রত্যেকেই শ্রবণ নতুবা বাক প্রতিবন্ধী শিশু। এইসব শিশুরাও আমাদের সমাজের সম্পদ। আমার দেশ ও জাতির অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। কিন্তু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির বেহাল দশা থাকার ফলে এসব শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষা কার্যক্রম চালাতে নানা ধরনের সমস্যা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে একজন অভিভাববক বলেন, প্রতিষ্ঠানটির শ্রেণীকক্ষ ভাঙ্গা, বাউন্ডারি দেয়াল ইত্যাদি নানা ধরনের সমস্যা থাকায় এখানে নিয়মিত ক্লাস হচ্ছে না। এমনকি এখানে বাউন্ডারি দেয়াল না থাকায় শিশুদের নিরাপত্তা নিয়েও চিন্তায় থাকতে হয় আমাদের। প্রতিষ্ঠানটির দ্রুত উন্নয়ন করা উচিত।

হাই কেয়ার স্কুলের প্রধান শিক্ষক ইসরাত জাহান বলেন,  শ্রেণীকক্ষগুলোর নাজেহাল অবস্থা থাকায় নিয়মিত ক্লাস পরিচালনা করতে ব্যর্থ হচ্ছি। আমাদের চারপাশে বাউন্ডারি দেয়ালের প্রয়োজন। নানা ধরনের সমস্যা থাকায় এখন ঠিকমত শিশুরা আসছে না । এখানে যদি একটি হেয়ারিং সেন্টার থাকত তাহলে শিক্ষা কার্যক্রমের উন্নতি হত। এসময় তিনি এখানে কর্মরত শিক্ষকদের সরকারি স্কেলে বেতন ভাতা প্রাপ্তির দাবি জানান।

শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধী শিশুদের একমাত্র শিক্ষালয় হাই কেয়ার স্কুলের সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধান ও উন্নয়নকল্পে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষকমন্ডলী ও অধ্যায়নরত শিশুদের অভিভাবকগণ।

ফেসবুক মন্তব্য