,


ঘাটাইল হতে পারে জেলা শহর ও পর্যটন এলাকা

Print Friendly, PDF & Email

মোঃ আরিফ খান, ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি ঃ ইতিহাস ঘাটলে ঘাটাইল উপজেলার সুনাম টাংগাইল জেলার অন্যান্য উপজেলার চাইতে অনেক উপরে। তাইতো কবি, সাহিত্যিক, ফল-ফুল, পাহাড়ী অঞ্চলে ঘেরা আমাদের ঘাটাইল উপজেলা। পর্যটনের জন্য ঘাটাইলের পূর্বাঞ্চলে সাগরদিঘী, জোড়দিঘী, গুপ্তবৃন্দাবন যেখানে হিন্দুরা সারা বাংলাদেশ থেকে এসে তারা পূর্ণের কাজের জন্য মিলিত হন। ইতিহাস ঘাটলে আরো জানা যায় শুধু পাহাড়ী অঞ্চল নয় ঘাটাইলের বিভিন্ন অঞ্চলে রয়েছে সুধীজনের সুখ্যাতি। শিক্ষার ক্ষেত্রে এখানে উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়, মহিলা কজেল ও স্কুল সহ বিভিন্ন উন্নত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিদ্যমান রয়েছে। ঘাটাইলের পূর্বাঞ্চল কে আমরা পর্যটন শিল্পের জন্য ব্যবহার করতে পারি। এর ইতিহাস ঘাটলে জানা যায় ১৯৬১ সালে ২২ লক্ষ লোক অধ্যুষিত ০৮টি থানা নিয়ে টাংগাইল জেলা প্রতিষ্ঠিত হয়।

ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার অনুপাতে প্রশাসনিক সুবিধার্থে ০৮টি থানা সম্প্রসারিত করে ১১টি থানা করা হয়। বর্তমানে টাংগাইল জেলায় ১২টি উপজেলায় উন্নীত হয়েছে। আইন-শৃংখলা প্রশাসনিক সুযোগ-সুবিধা ও স্বাধীনতার চেতনাবোধ উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় অতিরিক্ত লোকসংখ্যার চাপে বহুলাংশে বিঘ্নিত হয়। ফলে সুষ্ঠু উন্নয়ন ও আইন-শৃংখলার কারনে টাংগাইলের ভিতরে নতুন একটি জেলা সৃষ্টি করার প্রয়োজনীয়তা তীব্রভাবে অনুভূত হয়। সেই লক্ষ্যে ঘাটাইল, মধুপুর, গোপালপুর, কালিহাতী, ধনবাড়ী ও ভূয়াপুর উপজেলাকে বিভিন্ন সরকার প্রধানগণ ঘাটাইল কে মহকুমায় রুপান্তরিত করার প্রতিশ্রুতি দিলেও আজ পর্যন্ত ঘাটাইলকে জেলা রূপে বাস্তবায়ন করা হয় নাই। এরপর প্রায় ১৫ বছর অতিবাহিত হয়ে গেছে, ঘাটাইল উপজেলার আয়তন ৪৫১.৩০ বর্গকিলোমিটার লোকসংখ্যা বর্তমানে প্রায় ০৫ (পাঁচ) লক্ষ। উত্তর টাংগাইলে ০৬ (ছয়) উপজেলা। এই ছয়টি উপজেলার লোকসংখ্যা প্রায় ২০ (বিশ) লক্ষ উত্তর টাংগাইলের এই ছয়টি উপজেলার বেশীরভাগ পাহাড়ি অঞ্চল অনুন্নত। উত্তর টাংগাইলের মধুপুর উপজেলা হতে টাংগাইল জেলা সদরের দূরত্ব ৪৮ কিলোমিটার ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘী হতে জেলার দূরত্ব অনুরূপ। ফলে বিস্তীণ এলাকার অধিকাংশ জনগণ আধুনিক ও উন্নত সুযোগ-সুবিধা থেকে সম্পূর্ণ বঞ্চিত। অনেক সময় দুস্কৃতিকারীর হাতে তাৎক্ষনিক প্রশাসনিক সাহায্যের অভাবে জিম্মি থাকতে বাধ্য হয়।

ৱএ ছাড়াও বিস্তীর্ণ জনগোষ্ঠী আধুনিক চিকিৎসা হতে বঞ্চিত ও উপক্ষেতি। এসব অসুবিধা দূরীকরনার্থে এবং উত্তর টাংগাইলের ৬টি উপজেলার ২০ লক্ষ মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ও মূল্যবোধ উজ্জীবিত করার মানসে এ অঞ্চলের উল্লেখিত ৬টি উপজেলার সমন্বয়ে ঘাটাইলকে নতুন জেলা করার আবেদন জানাচ্ছি। এখানে উল্লেখ থাকে যে, ব্রিগেড হেড কোয়াটার হিসেবে ঘাটাইলে শহীদ সেনানিবাস রয়েছে। ঘাটাইল থেকে পার্শ্ববর্তী কালিহাতী, ভূয়াপুর, গোপালপুর, মধুপুর এবং ধনবাড়ী উপজেলার সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল। যোগাযোগ ব্যবস্থা বর্তমানে যে অবস্থায় আছে। যোগাযোগের কোন অসুবিধা হবে না এবং যোগাযোগ খাতে কোন আর্থিক ব্যয় হবে না।

উপরোক্ত তথ্যের আলোকে ঘাটাইল উপজেলাকে জেলা হিসেবে বাস্তবে রূপ দিয়ে সাথে সাথে পর্যটন শিল্পের জন্য এই উপজেলাকে বাংলাদেশ সরকারের একটি আয়ের উৎস হিসেবে ধরে নেওয়া যায়।

Comments

comments